Annual Performance Agreement (APA)

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
কর কমিশনার, কর অঞ্চল – ৫, ঢাকা
এবং
সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) , জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ঢাকা এর মধ্যে স্বাক্ষরিত
বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি
জুলাই ১, ২০১৭ – জুন ৩০, ২০১৮

 

 

 

সূচীপত্র

 

কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার কর্মসম্পাদনের সার্বিক চিত্র

প্রস্তাবনা:

সেকশন ১: কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার রূপকল্প (Vision) এবং  অভিলক্ষ্য  (Mission) অর্জনের জন্য কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ এবং কার্যাবলি (Outcome/Impact) (Acronyms)

 

সেকশন ২: কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার বিভিন্ন কার্যক্রমের চুড়ান্ত ফলাফল/প্রভাব (Outcome/Impact) (Acronyms)

 

সেকশন ৩: কৌশলগত উদ্দেশ্য, অগ্রাধিকার, কার্যক্রম, কর্মসম্পাদন সূচক এবং লক্ষ্যমাত্রাসমূহ (Outcome/Impact)

 

সংযোজনী ১: শব্দসংক্ষেপ (Acronyms)

 

সংযোজনী ২: কর্মসম্পাদন সূচকসমূহ, বাস্তবায়নকারী দপ্তর/সংস্থাসমূহ এবং পরিমাপ পদ্ধতি

 

সংযোজনী ৩: কর্মসম্পাদন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের ক্ষেত্রে অন্যান্য মন্ত্রণালয়/বিভাগ/জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের উপর নির্ভরশীলতা

 

 

উপক্রমণিকা (Preamble)

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অধীন  কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার কর কমিশনার

এবং

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের দায়িত্বে নিয়োজিত চেয়ারম্যান এর প্রতিনিধি হিসেবে আয়কর অনুবিভাগের পক্ষে সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) এর মধ্যে ২০১৭ সালের অাগষ্ট মাসের ০২ তারিখে এই বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরিত  হল।

 

এই চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী উভয়পক্ষ নিম্নলিখিত বিষয়সমূহে সম্মত হলেন :

 

 

কর অঞ্চল – ৫, ঢাকা এর কর্মসম্পাদনের সার্বিক চিত্র

(Overview of the Performance of Taxes Zone – 5, Dhaka)

 

সাম্প্রতিক বছরসমূহের (তিনবছর) প্রধান অর্জনসমূহঃ

 

অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের অধীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর অনুবিভাগের অধীন কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার প্রধান কার্যাবলী হচ্ছে প্রত্যক্ষ  কর আরোপ, কর আহরণ এবং এতদসংক্রান্ত আইন, বিধি-বিধানের যথাযথ প্রয়োগ নিশ্চিতকরণ। ২০১২-২০১৩ অর্থবছরে কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার মোট লক্ষ্যমাত্রা ৪৬০.০০ কোটি টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছিল ৪৭৩.৫০ কোটি টাকা। ২০১৩-২০১৪ অর্থবছরে কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার মোট লক্ষ্যমাত্রা ৫২৫.০০ কোটি টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছিল ৫২১.৮০ কোটি টাকা। ২০১৪-১৫ ও ২০১৫-১৬ অর্থবছরের লক্ষ্যমাত্রা যথাক্রমে ৭২৫.০০ ও ৮৩০.০০ কোটি টাকা; যার বিপরীতে আদায়কৃত রাজস্বের পরিমাণ যথাক্রমে ৬১৫.৮৮ ও ৮৫৪.৯১ কোটি টাকা। ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে সরাসরি অনলাইনে e-TIN  সংগ্রহ পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এ কর অঞ্চলে ৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত ৮২,৩২০ করদাতা e-TIN রেজিষ্ট্রেশন/ রি-রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন। দেশব্যাপী আয়কর মেলা ২০১৫ ও ২০১৬ আয়োজনের অংশ হিসাবে এ কর অঞ্চলের অধিক্ষেত্রাধীন ভৈরব উপজেলায় দিনব্যাপী আয়কর মেলার আয়োজন করা হয়। উক্ত আয়কর মেলায় করদাতাগণ আয়কর বিষয়ক সেবা গ্রহণ, ইটিআইএন রেজিষ্ট্রেশন/ রি-রেজিষ্ট্রেশন এবং রিটার্ন দাখিলের সুযোগ গ্রহণ করেছেন।

 

সমস্যা এবং চ্যালেঞ্জসমূহঃ

 

সঠিক কর নির্ধারণ, কর ফাঁকি রোধ, করের আওতা সম্প্রসারণ, প্রশিক্ষিত জনবল বিশেষত কর পরিদর্শকের স্বল্পতা, লজিস্টিকস স্বল্পতা ,পূর্ণাঙ্গ অটোমেশন না হওয়া প্রভৃতি এ কর অঞ্চলের সমস্যা।

 

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাঃ

 

ভবিষ্যতে জাতীয় রাজস্ব আদায় বৃদ্ধির জন্য তথ্য প্রযুক্তি (আইসিটি) অবকাঠামো বিনির্মাণ ও অটোমেশন কার্যক্রমসমূহ জোরদারকরণ, করনেট (ট্যাক্সনেট) সম্প্রসারণ, কর ফাঁকি রোধ ও কর প্রদান পদ্ধতি সহজীকরণ;  কর শিক্ষা, বিজ্ঞাপন এবং ট্যাক্স পেয়ার্স সার্ভিস; প্রয়োজনীয় উদ্যোগের মাধ্যমে উচ্চ আদালতের পেন্ডিং মামলাসমূহ নিষ্পত্তি ও সংশ্লিষ্ট রাজস্ব আদায়; কর্মকর্তা/কর্মচারীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি  এবং বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির (ADR) মাধ্যমে রাজস্ব আদায় জোরদার করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

২০১৫-১৬ অর্থ বছরের সম্ভাব্য প্রধান অর্জনসমূহঃ

 

  • ২০১৭-১৮ অর্থবছরে কর অঞ্চল – ৫, ঢাকার জন্য ধার্যকৃত ১,৫০০ কোটি টাকা রাজস্ব আহরণ;
  • কর অঞ্চলের অবকাঠামো ও সেবার মান উন্নয়ন;
  • করদাতা বান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণ;
  • কর ফাঁকি উদঘাটন ও উৎসে কর কর্তন তদারকি প্রক্রিয়া জোরদারকরণ ।

 

সেকশন ১:

 

কর অঞ্চল – , ঢাকার রূপকল্প (Vision) এবং অভিলক্ষ্য  (Mission) অর্জনের জন্য কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ এবং কার্যাবলিঃ

 

১.১ রূপকল্প (Vision):  সর্বোচ্চ কর্মদক্ষতার মাধ্যমে আধুনিক ও টেকসই কর ব্যবস্থাপনা।

 

১.২ অভিলক্ষ্য (Mission):

 

দক্ষ, টেকসই এবং আধুনিক কর ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর নীতি এবং বাজেট লক্ষ্যমাত্রা অনুসরণপূর্বক একটি করদাতাবান্ধব পরিবেশ গড়ে তোলা ও এর মাধ্যমে রাজস্ব আদায় বৃদ্ধি করা ।

 

১.৩ কৌশলগত উদ্দেশ্য সমূহঃ

 

রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধিকরণ, করদাতা বান্ধব কর পরিবেশ নিশ্চিতকরণ, আয়কর ফাঁকি উদঘাটন এবং নতুন করদাতা চিহ্নিতকরণ ।

 

১.৪  কার্যাবলীঃ

 

রাজস্ব আহরন বৃদ্ধিকরণ

 

  • দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি ও দাবী সৃষ্টি
  • উৎসে কর কর্তন মনিটরিং জোরদার
  • অগ্রিম আয়কর আদায়, বকেয়া আয়কর আদায়
  • ৭৪ ধারা অনুযায়ী রিটার্নের ভিত্তিতে কর আদায়
  • যথাসময়ে আপীল, ট্রাইবুনাল ও হাইকোট হতে প্রাপ্ত নির্দেশনা বাস্তবায়ন
  • ADR এর মাধ্যমে মামলা নিষ্পত্তি কার্যক্রম জোরদারকরণ

 

করদাতাবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণ

 

  • প্রশাসনিক কাজে গতিশীলতা আনয়ন
  • কর্মকর্তা কর্মচারীদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ
  • সিটিজেন চার্টারে বর্ণিত সেবাসমূহ যথাসময়ে প্রদান
  • Stakeholder দের সঙ্গে রাজস্ব বিষয়ক মত বিনিময় (Revenue Dialogue)

 

আয়কর ফাঁকি উদঘাটন

 

  • সার্কেল অফিস পরিদর্শন
  • কর ফাকিঁর মামলা পুণঃ উন্মোচন
  • স্থানীয় ও রাজস্ব অডিট আপত্তিসমূহ দ্রুত নিষ্পত্তি

 

নতুন করদাতা চিহ্নিতকরণ

 

  • অভ্যন্তরীন ও বহিরাঙ্গন জরীপ পরিচালনা ও করদাতা উদ্বুদ্ধকরণ

 

সেকশন-২

 

আয়কর অনুবিভাগের বিভিন্ন কার্যক্রমের চূড়ান্ত ফলাফল/ প্রভাব (Outcome/Impact)

 

চূড়ান্ত ফলাফল/প্রভাব (Outcome/Impact) কর্মসম্পাদন সূচকসমূহ (Performance Indicators) একক

(Unit)

ভিত্তিবছর

২০১৫-১৬

প্রকৃত

২০১৬-১৭

লক্ষ্যমাত্রা

২০১৭-১৮

প্রক্ষেপণ (Projection) নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের ক্ষেত্রে যৌথভাবে দায়িত্ব প্রাপ্ত মন্ত্রণালয়/ বিভাগ/ সংস্থাসমূহের নাম উপাত্তসূত্র (source’s of data)
২০১৮-১৯ ২০১৯-২০
 

রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধি

কর জিডিপির অনুপাত বৃদ্ধি শতকরা হার ১০.৬০ ১১.৫০ ১২.৩০ ১৩.১০ ১৪.১০  এটর্নি জেনারেলের দপ্তর, বাংলাদেশ ব্যাংক, মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রণের দপ্তর জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এবং জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

 

সেকশন-৩

কৌশলগত উদ্দেশ্য কর্মসম্পাদন সূচক এবং লক্ষ্যমাত্রাসমূহ, কার্যক্রম, অগ্রাধিকার

 

কৌশলগত উদ্দেশ্য (Strategic Objectives) কৌশলগত উদ্দেশ্যের মান (Weight of Strategic Objectives) কার্যক্রম (Activities) কর্মসম্পাদন সূচক (Performance Indicators) একক (Unit) কর্মসম্পাদন সূচকের মান (Weight of Performance Indicators) ভিত্তি বছর (Base Year) ২০১৫-১৬ প্রকৃত অর্জন ২০১৬-১৭ লক্ষ্যমাত্রা/ নির্ণায়ক ২০১৭-১৮
(Target/Criteria Value for FY 2017-18)
প্রক্ষেপণ  
অসাধারণ অতি উত্তম উত্তম চলতি মান চলতি মানের নিম্নে ২০১৮-১৯ ২০১৯-২০
১০০.০০% ৯০.০০% ৮০.০০% ৭০.০০% ৬০.০০%
১. রাজস্ব আহরণ জোরদারকরণ ৬৮
[১.১]  রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জন। [১.১.১] আদায়কৃত মোট রাজস্ব: (আয়কর) কোটি টাকা মোট ৩৯ ৭৫৭.৮৪ ১০৩০.৯০ ১,৫০০.০০ ১,৩৫০.০০ ১,২০০.০০ ১,০৫০.০০ ১০৩০.৯০ ১,৬০০ ১,৭৫০
[১.২] প্রদর্শিত রাজস্ব আদায়ের সাথে ট্রেজারী হিসাবের সমন্বয় সাধন [১.২.১] অর্ধ-বার্ষিক সমন্বয় সাধন তারিখ                   – ২০/০১/১৮ ৩১/০১/১৮ ০৭/০২/১৮ ১৫/০২/১৮ ২১/০২/১৮
[১.২.২] বার্ষিক সমন্বয় সাধন তারিখ ২০/০৭/১৮ ৩০/০৭/১৮ ১৫/০৮/১৮ ২১/০৮/১৮ ৩১/০৮/১৮
[১.৩] মাঠ অফিস সমূহ পরিদর্শন [১.৩.১] দাখিলকৃত প্রতিবেদন:আয়কর সংখ্যা ২৮ ৪৪ ৭০ ৬৩ ৫৬ ৪৯ ৪৪ ৭৫ ৮০
[১.৪] অভিযোগ ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অনুসন্ধান কার্যক্রম [১.৪.১] দায়েরকৃত মামলা:  আয়কর

 

সংখ্যা ১০
[১.৫] মামলা থেকে রাজস্ব আদায়ঃমোট [১.৫.১]

আদায়কৃত আয়কর

কোটি
টাকায়
৫.৭৫ ৫.৫০ ৫.২৫
[১.৬] উৎসে কর কর্তন মনিটরিং [১.৬.১] পরিবীক্ষিত উৎসে করকর্তনকারী কর্তৃপক্ষ :আয়কর সংখ্যা ১৩০ ১৫০ ১৬০ ১৫৭ ১৫৫ ১৫৩ ১৫০ ১৮০ ২০০
[১.৭] কমপ্লাইন্ট (Complain) করদাতার সংখ্যা বৃদ্ধিকরণ [১.৭.১] রির্টান দাখিলের হার: আয়কর শতকরা হার ৭২ ৭৫ ৬৫ ৫৯ ৫৫ ৫৩ ৫২ ৬৭ ৭০
[১.৮] বিচারাধীন মামলাসমূহ দ্রুত নিস্পত্তিকরণ। [১.৮.১] মোট মামলা নিষ্পত্তি: আয়কর শতকরা হার
১০ ১২ ১১ ১১ ১০ ১০ ১৩ ১৪
[১.৯]করদাতাগণকে বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তি পদ্ধতি গ্রহণে উদ্বুদ্ধকরণ। [১.৯.১]

মোট বিরোধ নিষ্পত্তি:
আয়কর

সংখ্যা ২৩
[১.১০] বকেয়া কর আদায় ত্বরান্বিতকরণ। [১.১০.১] আদায়কৃত বকেয়া রাজস্ব: আয়কর কোটি টাকা ১০ ১২ ১৫
[১.১১] রির্টাণ পরীক্ষাকরণ। [১.১১.১] রির্টাণ পরীক্ষা: আয়কর শতকরা হার ২.৫০ ৩.০০ ৩.৯০ ৩.৫১ ৩.১২ ২.৭৩ ৩.০০ ৫.০৭ ৬.৫৯
[১.১২] জরিপ কার্যক্রম [১.১২.১] কর নেটের আওতায় নতুন করদাতা বৃদ্ধি: আয়কর সংখ্যা ২,৯৬৫ ৯৮১ ১৮,০০০ ১৬,২০০ ১৪,৪০০ ১২,৬০০ ৯৮১ ১৮,৫০০ ১৯,০০০
২. কর প্রশাসনের আধুনিকায়ন

ও করদাতা বান্ধবকরণ

১৫ [২.১] প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন/ অনুষ্ঠান প্রচার। [২.১.১]

মোট বিজ্ঞাপন/অনুষ্ঠান প্রচার: আয়কর

সংখ্যা ১.৫ ১০
[২.২] করদাতাগণকে প্রচলিত আইনে তাদের অধিকার ও বাধ্যবাধকতা সম্পর্কে সম্যক ধারণা দেওয়ার নিমিত্ত নিয়মিত মিথষ্ক্রিয়া/ যোগাযোগ স্থাপন। [২.২ .১]

মোট অনুষ্ঠিত সভা/যোগাযোগ: আয়কর

সংখ্যা ১.৫ ১২ ১১ ১০ ১৫ ১৮
[২.৩] সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে করদাতা সেবা বৃদ্ধিকরণ [২.৩.১] মোট সেবা গ্রহণ-কারীর সংখ্যা: আয়কর সংখ্যা ১.৫ ৪০,০০০ ৪৫,০০০ ৫০,০০০ ৪৮,০০০ ৪৭,০০০ ৪৬,০০০ ৪৫,০০০ ৫২,০০০ ৫৫,০০০
[২.৪] স্বেচ্ছা পরিপালনের সংখ্যা বৃদ্ধি [২.৪.১] মোট পুরস্কার প্রদানঃ আয়কর সংখ্যা ১.৫
[২.৫] ই-ফাইলিং এ আয়কর রিটার্ণ দাখিল [২.৫.১] অনলাইনে আয়কর রির্টাণ দাখিল শুরু তারিখ ৩০/০৬/২০১৬ ৩০/০৯/২০১৬ ৩১/১২/২০১৬ ৩১/০৩/২০১৭ ৩০/০৬/২০১৭
[২.৬] ই-টিআইএন রেজিষ্ট্রেশন পদ্ধতি [২.৬.১] রেজিষ্ট্রেশন/ রি-রেজিষ্ট্রেশনকৃত ই-টিআইএন সংখ্যা ৪৮৯৪২ ১৪০০৯ ১৪১০০ ১৪০৭৫ ১৪০৫০ ১৪০২৫ ১৪০০৯ ১৪২০০ ১৪৩০০
[২.৭] ই-পেমেন্ট পদ্ধতি [২.৭.১] মোট রাজস্ব আদায়ঃ আয়কর কোটি

টাকা

 

 

[২.৮] কর্মকর্তা –কর্মচারীদের প্রশিক্ষণ প্রদান [২.৮.১]

প্রশিক্ষণ প্রদান

: আয়কর

সংখ্যা ১.৫ ১০
[২.৯] কমকর্তা –কমচারীদের পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে কাজে উদ্বুদ্ধকরণ [২.৯.১]

পুরস্কার প্রদান

: আয়কর

সংখ্যা ১.৫

 

আবশ্যিক কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ
কৌশলগত উদ্দেশ্য  (Strategic Objectives) কৌশলগত উদ্দেশ্যের মান (Weight of Strategic Objectives) কার্যক্রম  (Activities) কর্মসম্পাদন সূচক (Performance of Indicator) একক   (Unit) কমৃসম্পাদন সূচকের মান (Weight of PI) লক্ষ্যমাত্রার মান  (২০১৫-১৬) Target Value (2015-16)
অসাধারন (Excellent) অতি উত্তম (Very Good)   উত্তম (Good)    চলতি মান (Fair) চলতি মানের নিমেণ                (Poor)
১০০% ৯০% ৮০% ৭০% ৬০%
১. দক্ষতার সঙ্গে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুড়ান্ত বাস্তবায়ন [১.১] খসড়া বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি দাখিল [১.১.১] প্রশিক্ষণ সমাপ্তির পর নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে খসড়া চুক্তি দাখিলকৃত দিন
[১.২] বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির মূল্যায়ন প্রতিবেদন দাখিল [১.২.১] নির্ধারিত তারিখে মূল্যায়ন প্রতিবেদন দাখিলকৃত তারিখ ৩১/০৮/২০১৫ ০১/০৯/২০১৫ ০২/০৯/২০১৫ ০৩/০৯/২০১৫ ০৪/০৯/২০১৫
[১.৩] বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়ন    পরিক্ষণ [১.৩.১] অর্ধবার্ষিক ও ত্রৈমাসিক প্রতিবেদন দাখিলকৃত সংখ্যা
[১.৪] আওতাধীন সংস্থার সঙ্গে বার্ষিক কর্মসম্পাদন সংক্রান্ত  সমঝোতা স্মারক [১.৪.১] সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত তারিখ ১৫/১০/২০১৫ ১৯/১০/২০১৫ ২২/১০/২০১৫ ২৬/১০/২০১৫ ২৯/১০/২০১৫
[১.৫] বার্ষিক কর্মসম্পাদন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রণোদনা প্রদান [১.৫.১] বৈদেশিক প্রশিক্ষণে প্রেরিত কর্মকর্তা সংখ্যা
২. উদ্ভাবন ও অভিযোগ প্রতিকারের মাধ্যমে সেবার মানোন্নয়ন [২.১]  পরিবর্তিত ফরম্যাটে মন্ত্রণালয়/বিভাগ এবং মাঠপর্যায়ের দপ্তরসমূহে সিটিজেন্স চার্টার প্রণয়ন [২.১.১] পরিবর্তিত ফরম্যাটে মন্ত্রণালয়/বিভাগের সিটিজেন চার্টার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তারিখ ২৯/১০/২০১৫ ০৫/১১/২০১৫ ১২/১১/২০১৫ ১৯/১১/২০১৫ ২৬/১১/২০১৫
[২.১.২] মাঠপর্যায়ের দপ্তরসমূহের সিটিজেন্স চার্টার প্রণীত ও প্রকাশিত তারিখ ৩০/১১/২০১৫ ০৭/১২/২০১৫ ১৪/১২/২০১৫ ২১/১২/২০১৫ ২৮/১২/২০১৫
[২.২] অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা বাস্তবায়ন [২.২.১] অভিযোগ নিষ্পত্তিকৃত % ৯০ ৮০ ৭০ ৬০ ৫০
[২.৩] সেবা প্রক্রিয়ায় উস্নাবন কার্যক্রম বাস্তবায়ন [২.৩.১]  মন্ত্রণালয়/বিভাগ ও অধিদপ্তর/সংস্থাসমূহে কমপক্ষ একটি করে অনলাইন সেবা চালূকৃত তারিখ ৩০/১১/২০১৫ ০৭/১২/২০১৫ ১৪/১২/২০১৫ ২১/১২/২০১৫ ২৮/১২/২০১৫
[২.৩.২] মন্ত্রণালয়/বিভাগ ও অধিদপ্তর/সংস্থাসমূহে কমপক্ষে  একটি করে সেবা প্রক্রিয়া সহজীকৃত তারিখ ৩০/১১/২০১৫ ০৭/১২/২০১৫ ১৪/১২/২০১৫ ২১/১২/২০১৫ ২৮/১২/২০১৫
৩. দক্ষতা ও নৈতিকতার উন্নয়ন [৩.১] জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বাস্তবায়ন [৩.১.১] শুদ্ধাচার বাস্তবায়ন    পরিবীক্ষণ কাঠামো (monitoring framework) প্রণীত তারিখ ৩০/১১/২০১৫ ০৭/১২/২০১৫ ১৪/১২/২০১৫ ২১/১২/২০১৫ ২৮/১২/২০১৫
[৩.১.২] জুন/১৬ এর মধ্যে শুদ্ধাচার কর্মপরিকল্পনার কার্যক্রম বাসত্মবায়িত % ১০০ ৯০ ৮০ ৭০ ৬০
[৩.২] কর্মকর্তা/কর্মচারীদের প্রশিক্ষণ আয়োজন [৩.২.১] প্রশিক্ষণের সময় জনঘন্টা ৬০ ৫৫ ৫০ ৪৫ ৪০
৪. তথ্য অধিকার ও স্বপ্রণোদিত তথ্য প্রকাশ বাস্তবায়ন   [৪.১] তথ্য প্রকাশ নীতিমালা প্রণয়ন [৪.১.১] তথ্য প্রকাশ নির্দেশিকা ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তারিখ ২৯/১০/২০১৫ ০৫/১১/২০১৫ ১২/১১/২০১৫ ১৯/১১/২০১৫ ২৬/১১/২০১৫
[৪.২] আওতাধীন দপ্তর/সংস্থায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিয়োগ [৪.২.১]  আওতাধীন সকল দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মর্তার নাম ও যোগাযোগের ঠিকানা সঙ্কলন ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তারিখ ০.৫ ২৯/১০/২০১৫ ০৫/১১/২০১৫ ১২/১১/২০১৫ ১৯/১১/২০১৫ ২৬/১১/২০১৫
[৪.৩] মন্ত্রণালয়/বিভাগে বার্ষিক প্রতিবেদন প্রণয়ন [৪.৩.১] বার্ষিক প্রতিবেদন ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তারিখ ০.৫ ১৫/১০/২০১৫ ২৯/১০/২০১৫ ১৫/১১/২০১৫ ৩০/১১/২০১৫ ১৫/১২/২০১৫
৫. আর্থিক ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন [৫.১] বাজেট বাস্তবায়ন    কমিটির কর্মপরিধি যথাযথভাবে অনুসরণ [৫.১.১] বাজেট বাস্তবায়ন    পরিকল্পনা (Budget Implementation Plan) প্রণীত ও ত্রৈমাসিক বাজেট বাস্তবায়ন প্রতিবেদন দাখিলকৃত সংখ্যা
[৫.২] অডিট আপত্তি নিষ্পত্তি কার্যক্রমের উন্নয়ন [৫.২.১] বছরে অডিট আপত্তি নিষ্পত্তিকৃত % ৫০ ৪৫ ৪০ ৩৫ ৩০

 

 

 

আমি, কর কমিশনার, কর অঞ্চল -৫, ঢাকা সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা), জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এর নিকট অঙ্গীকার করছি যে, এই চুক্তিতে বর্ণিত ফলাফল অর্জনে সচেষ্ট থাকব।

 

 

আমি, সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা), জাতীয় রাজস্ব বোর্ড আয়কর অনুবিভাগের প্রতিনিধি হিসেবে কর কমিশনার, কর অঞ্চল -৫, ঢাকা এর  নিকট অঙ্গীকার করছি যে, এই চুক্তিতে বর্ণিত ফলাফল অর্জনে সংশ্লিষ্ট কর অঞ্চলকে  সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করব।

 

 

 

 

স্বাক্ষরিতঃ

 

 

——————-

তারিখ

————————–

কর কমিশনার

কর অঞ্চল – ৫, ঢাকা

——————–

তারিখ

 

————————-

সদস্য

কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, ঢাকা

 

সংযোজনী-১

 

 

শব্দ সংক্ষেপ (Acronyms)

 

 

 

ADR                           –           Alternative Dispute Resolution

e-TIN                         –           electronic Taxpayers’  Identification Number

 

ই-টিআইএন (e-TIN)       –           ইলেকট্রনিক ট্যাক্সপেয়ারস আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার

 

 

 

 

 

সংযোজনী-২: কর্মসম্পাদন সূচকসমূহ, বাস্তবায়নকারী মন্ত্রণালয়/বিভাগ/সংস্থা এবং পরিমাপ পদ্ধতির বিবরণ

 

ক্রমিক নম্বর কর্মসম্পাদন সূচকসমূহ বিবরণ বাস্তবায়নকারী অধিদপ্তর/সংস্থা/দপ্তর পরিমাপ পদ্ধতি এবং উপাত্তসূহ
০১ আদায়কৃত রাজস্বের পরিমান ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে  বাজেটে নির্ধারিত রাজস্ব আদায়। এ লক্ষ্যে বাজেট বাস্তবায়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে এবং সে মোতাবেক কার্যক্রম চলছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কোটি টাকায় (জাতীয় রাজস্ব বোর্ড)
০২ নির্ধারিত মাঠ পর্যায়ের অফিস পরিদর্শণ ও প্রতিবেদন দাখিল মাঠ পর্যায়ের অফিসসূহের মামলা নিস্পত্তির গুণগত মান পর্যালোচনা ও কর ফাঁকি রোধ যথাযথ নির্দেশ ও পরিপালন প্রতিবেদনে ত্রুটিসমূহ বিশ্লেষণপূর্বক আইনানুক কার্যক্রম গ্রহণ জোরদারকরণ। সংখ্যা
০৩ অভিযোগ ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অনুসন্ধান কার্যক্রম ও মামলার সূচনা অভিযোগ ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আহরিত তথ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক আইনের প্রয়োগ করে ফাঁকি/গোপনকৃত আয় পুনরুদ্ধার করা। সংখ্যা
০৪ বড় মামলা নিষ্পত্তি রাজস্ব সম্ভাবনাময় বড় মামলাসমূহ দ্রুত নিস্পত্তি ও দাবীকৃত রাজস্ব দ্রুত আদায়ের জন্য তদারকী জোরদারকরণ। সংখ্যা
০৫ বিরোধ নিষ্পত্তি করদাতাদের উদ্ভুত বিরোধসমূহ দ্রুত নিস্পত্তির নিমিত্তে আপিলের পরিবর্তে বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তি ব্যবস্থা গ্রহণে করদাতাগণকে উদ্বুদ্ধকরণ। সংখ্যা
০৬ বকেয়া কর আদায় বকেয়া কর আদায়ের জন্য জরিমানা, ব্যাংক হিসাব জব্দ ও সার্টিফিকেট মামলাসহ আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণ ও তদারকি জোরদারকরণ। টাকা
০৭ অডিটের মাধ্যমে মামলা পোষ্ট ক্লিয়ারেন্স অডিট এর মাধ্যমে মামলা। সংখ্যা
০৮ রিটার্ণ পরীক্ষা করদাতা কর্তৃক দাখিলকৃত রির্টাণসমূহ পরীক্ষাপূর্বক ত্রুটিপূর্ণ রিটার্ণ বাছাই করে ডেস্ক অডিট ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ফিল্ড অডিটসহ অন্যান্য আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণ জোরদারকরণ। পরীক্ষার শতকরা হার
০৯ নন-ফাইলিংরিটার্ণ যে সকল করদাতা সঠিক সময়ে রিটান দাখিলে ব্যর্থ হন, তাদের রিটার্ণ দাখিলের জন্য নোটিশ জারী, জরিমানাসহ অন্যান্য আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণ জোরদারকরণ। সংখ্যা
১০ নতুন করদাতা বৃদ্ধিকরণ জরিপের মাধ্যমে তথা আন্ত:প্রতিষ্ঠানসমূহ হইতে তথ্য সংগ্রহপূর্বক নতুন করাদাতাদের কর নেটের আওতায় আনয়ণ। বৃদ্ধির সংখ্যা
১১ বিজ্ঞাপন ও অনুষ্ঠান প্রচার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার বিজ্ঞাপন ও অনুষ্ঠান প্রচার। সংখ্যা
১২ যোগাযোগ ও সভা অনুষ্ঠান করদাতাগণকে প্রচলিত আইনে তাদের অধিকার ও বাধ্যবাধকতা সম্পর্কে সম্যক ধারণা দেওয়ার নিমিত্ত যোগাযোগ স্থাপন ও সভা-সমাবেশ অনুষ্ঠান। সংখ্যা
১৩ সেবা গ্রহণকারীর সংখ্যা সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে করদাতা সেবা বৃদ্ধিকরণ ও কর প্রদান উৎসাহ প্রদান; সংখ্যা
১৪ পুরস্কার প্রদান পুরষ্কার প্রদানের মাধমে করদাতাকে কর প্রদানে উৎসাহ ও সামাজিকভাবে স্বীকৃতি প্রদান; সংখ্যা
১৫ অনলাইনে আয়কর রিটার্ণ দাখিল করদাতা যাতে সহজে অনলাইনে আয়কর রিটার্ণ দাখিল করতে পারেন, সে ব্যবস্থা গ্রহণ। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সংখ্যা
১৬ রেজিষ্ট্রিশেন /রেজিষ্টিশনকৃত ই-টিআইএন ই-টিআইএন রেজিষ্ট্রিশন পদ্ধতির আওতায় করদাতা সহজেই ই-টিআইএন নম্বর সংগ্রহ করতে পারেন। কোটি টাকা
১৭ ই-পেমেন্টের মাধ্যমে রাজস্ব আদায় করদাতাগণ সহজেই যেন ডেবিট কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে এ পদ্ধতির আওতায় কর পরিশোধ করতে পারেন। সংখ্যা

 

 

 

সংযোজনী ৩: অন্যান্য মন্ত্রণালয়/বিভাগের……….. নিকট প্রত্যাশিত সুনির্দিষ্ট কর্মসম্পাদন সহায়তাসমূহ

 

প্রতিষ্ঠানের ধরণ প্রতিষ্ঠানের নাম সংশ্লিষ্ট কর্মসম্পাদন সূচক উক্ত প্রতিষ্ঠানের নিকট সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগের প্রত্যাশিত সহায়তা প্রত্যাশার যৌক্তিকতা উক্ত প্রতিষ্ঠানের নিকট প্রত্যাশার মাত্রা উল্লেখ করুন প্রত্যাশা পূরণ না হলে সম্ভাব্য প্রভাব
সাংবিধানিক  প্রতিষ্ঠান এটর্নী জেনারেলের দপ্তর মামলা নিষ্পত্তি দ্রুততম নিষ্পত্তি সরকারের প্রাপ্য রাজস্ব আদায় নিশ্চিত করা ৩০% রাজস্ব ক্ষতি ও আইন প্রয়োগে জটিলতা
স্বায়ত্বশাসিত বাংলাদেশ ব্যাংক অভিযোগ গোয়েন্দা তথ্যের অনুসন্ধান কাযক্রম ও মামলার সূচনা চাহিত তথ্যের দ্রুত প্রাপ্তি কর ফাকি উদঘাটন ৩৫% রাজস্ব ক্ষতি ও আইন প্রয়োগে জটিলতা
সরকারি মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের দপ্তর রাজস্ব প্রদর্শিত আয়ের সাথে ট্রেজারীর হিসাবের সমন্বয় সাধন চাহিত তথ্য দ্রুত প্রাপ্তি রাজস্ব আদায়ের প্রকৃত তথ্য উদঘাটন ৩০% রাজস্ব আদায়ের সঠিক চিত্র পাওয়া যাবে না।